টবেই চাষ করুন শীতকালীন শাকসবজি

 শহরে মিলবেই নাচাষের জমি’ তাই সকলে বাসার ছাদে টবে চাষ করতে পারেন শীতকালীন সবজি। তার জন্য একটু পরিশ্রম তো করতেই হবে। সেজন্য বলি কম পরিশ্রমে বাড়ির ছাদে ও বারান্দায় ও কানিশে বিভিন্ন আকারে টবে শাকসবজি চাষ করতে পারেন সহজেই। যেকোনো চাষ করতে পারবেন ছাদ  বা বারান্দায়. কি করা



সূচিপত্রঃ

তাহলে জেনে নিন টবে সবজি চাষে নিয়ম কানুনঃ

বাসার ছাদে টবে টমেটো,  বেগুন, মরিচ, শসা, জিঙ্গা, মিষ্টি কুমড়া, মটর শুটকি,, কলমি শুটকি, লাউ,পুই শাক পেঁপে, পুদিনা, ধনেপাতা, খানকুনি, লেটুস, বুক লি এগুলো বাসার ছাদে বা যেকোনো তবে এসব যে এসব প্রভৃতি সবজি চাষ করতে পারেন। আমরা জানি শহরে বেশি পরিমাণ জায়গা না থাকার কারণে বাসার ছাদে বা বারান্দায় আমাদের সবজি শাকসবজি চাষ করতে হয়?


মাটির ধারণা ক্ষমত ঃ

 মাটি হতে হবে ঝরঝরে, হালকা এবং পানি ধরণ ধরন রাখার , দেখে নিন কেমন হবে








মাটি চাউনি দিয়ে চালে জীবাণু মুক্ত করে নিতে হবে। দুই ভাগ বেলে ও দোয়াসা মাটির সঙ্গে দুই ভাগ জৈব সার মিলিয়ে বীজ তলার মাটি তৈরি করতে হবে। মাটি এটেল হলে এক ব্যাগ বালি মিশিয়ে হালকা করে নিতে হয়। মাটি কে জীবাণুমুক্ত করে চালাকে রোগ বালাই থেকে রক্ষা করতে হয়।ে সাধারণত ১ লিটার ফরমাল ডিহাইড শতকরা ৪০ ভাগ ৪০ লিটার পানিতে মিশিয়ে এই দুধ দ্রবণের ২৫ লিটার প্রতি ঘন মিটার কয়েক কিস্তিতে ভিজিয়ে দিতে হয়।
এরপর দুইদিন চটের কাপড় দিয়ে মাটি ঢেকে রেখে পরে চট উঠিয়ে দিলে মাটির জীবাণুমুক্ত হয়।


আরো পড়ুনঃ ঘরে বসে অনলাইন ইসলামিক ব্যাংক খোলার নিয়ম


টবে শীতকালীন সবজি চাষ করতে যা করতে হয়ঃ

১। মাটি হালকা ঝরঝরে করে টবের উপরের বাক সমতল করতে হবে। হালকাভাবে বীজ  ছিটিয়ে দিতে হবে ।এরপর জৈব সার দিয়ে বীজগুলোকে ঢেকে দিতে হবে

সেচ কিঃ    


 নিয়মিত ছোট ছোট ছিদ্রযুক্ত যাজারি দিয়ে পানি দিয়েপানি দিতে হবে পানির ঝাপটাই যাতে বীজের উপর জৈব সারের আবরণ সরে না যায়। আকারের ছোট বীজগুলোর উপর দিয়ে পানি দিলে পানির দ্বার এক স্থানে অংকুরোদগমে ব্যাঘাত ঘটতে পারে, তাই সব টরের উপর দিয়ে পানি না দিয়ে তলা দিয়ে ছেচের ব্যবস্থা করা উচিত।

আরো পড়ুনঃ মেয়েদের আয় করার ৩০ টি উপায়


২। হেপ্টািকোলর 40 পরিমান মত দিয়ে পিঁপড়া ও মাকড়সা আক্রমণ থেকে রক্ষা করা যায়।
পাখির হাত থেকে ফসল বাঁচাতে হলে টপের উপর তারের বা লাইনের জাল দিয়ে ডেকে রাখতে হবে।
টবের মাটিতে বীজ ভবনের আগে বিভিন্ন প্রকার আগাছা জন্মতে পারে ।
তাই নিড়ানি দিয়ে খুশি তুলে ফেলতে হবে। তারার গোড়ায় যেন আঘাত না লাগে সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে কারণ তারা যে কোনো সময় ভেঙে যেতে পারে। টপগুলো সব সময় আলু বা রোদে রাখতে হবে
অতিরিক্ত ঝড় বৃষ্টি রুলতা থেকে রক্ষার জন্য সামরিকভাবে টপ নিরাপদ স্থানের রাখা উচিত বা সরানো উচিত।

৩। সবজি বেশিদিন গাছে না রেখে নরম থাকতে তুলে রাখা ভালো তাহলে চারা গাছ ভালো থাকবে।
সবজির গাছ থেকে ছেড়ে সংগ্রহ করা যাবে না।
আস্তে করে কেটে সংগ্রহ করতে হব, তাহলে সবজি গাছের কোন ক্ষতি হবে না।
 তাহলে আমাদের সবজি ভাল হবে এবং খেতে ভালো লাগবে, তাই আমাদের চারদিকে খেয়াল রাখতে হবে।



Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url