কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা

আপনারা কি কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা বা কার্বোহাইড্রেট বিহীন খাবার তালিকা ও শর্করা জাতীয় খাবার তালিকা সম্পর্কে জানতে চান? তাহলে আমাদের আজকের এই পোস্টটি আপনাদের জন্য। আজকে আমরা আলোচনা করব কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা, ফ্যাট যুক্ত খাবারের তালিকা বা হাই কার্বোহাইড্রেট ফুডস লিস্ট সম্পর্কে।
তাহলে চলুন দেরি না করে জেনে নেই, কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা, কার্বোহাইড্রেট এর কাজ কি এবং কম কার্বোহাইড্রেট যুক্ত ফল সম্পর্কে।

সূচিপত্রঃ কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা

কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা| শর্করা জাতীয় খাবার তালিকা

আজকে আমরা কার্বোহাইড্রেট খাবার তালিকা নিয়ে বিস্তারিত জানব। মানুষের শরীরকে গ্লুকোজ সরবরাহ করে থাকে কার্বোহাইড্রেট। যা শারীরিক কার্যকলাপ এবং শারীরিক ক্রিয়া-কলাপ কে সমর্থন করার জন্য ব্যবহৃত শক্তিতে রূপান্তরিত হয়ে থাকে। স্বাস্থ্যকর ও অস্বাস্থ্যকর উভয় খাবারের মধ্যেই কার্বোহাইড্রেট পাওয়া যায়। উচ্চ কার্বোহাইড্রেট যুক্ত স্বাস্থ্যকর খাবারগুলো হচ্ছে শাকসবজি, ফল এবং গোটা শস্য।

এছাড়াও উচ্চ কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবারের মধ্যে আরও স্বাস্থ্যকর খাবার হচ্ছে বীজ, বাদাম এবং মটরশুটি। উচ্চ কার্বোহাইড্রেট যুক্ত খাবারের মধ্যে অস্বাস্থ্যকর খাবারগুলো হল ক্যান্ডি, আলুর চিপস, কর্ণ চিপস, ফলের রস, চিনি যুক্ত পানীয়, মিষ্টি জাতীয় টিনজাত ফল, মাফিন, পাই, কেক, সিরিয়াল বার, আইসক্রিম, মিল্ক সেক, খাওয়ার জন্য প্রস্তুত সিরিয়াল, রুটি পণ্য, নরম প্রেটজেল এবং প্যানকেক ইত্যাদি। কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা হচ্ছে খাবারের একটা অন্যতম মুখ্য উপাদান।

আরো পড়ুনঃ মহান শিক্ষা দিবসে কতজন শহীদ হন

হাইড্রোজেন, কার্বন এবং অক্সিজেন এই তিন উপাদান নিয়ে গঠিত এক ধরনের জৈব যৌগকে বলা হয়ে থাকে শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট। কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার আমাদের এশিয়ানদের জন্য মুখরোচক এবং জনপ্রিয়। দুধ, কমলালেবু, আপেল, গাজর, বিট, আলু, ভুট্টা, গম, চাল আমাদের নিত্যদিন কার খাবার যেগুলোর সবকিছুতে বিদ্যমান রয়েছে কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা।

কার্বোহাইড্রেট বিহীন খাবার তালিকা

খাবার থেকে কার্বোহাইড্রেটের সম্পূর্ণভাবে নির্মূল হওয়ার পর ও একটা শর্করা মুক্ত ডায়েটকে মৃদু তম বা সমস্ত আধুনিক ডায়েটে সহজেই সহ্য করা হয়ে থাকে। কার্বোহাইড্রেট বিহীন খাবার তালিকা ওজন হ্রাস করার জন্য তৈরি করা হয়ে থাকে এবং ত্বকের চর্বি দূর করতে খুবই কার্যকর। কার্বোহাইড্রেট বিহীন ডায়েটে কি খাবেন আর কি খাবেন না? হারানো পাউন্ড যেন ফিরে না আসে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

ফ্যাট যুক্ত খাবারের তালিকা

এখন পুরো বিশ্ব জুড়ে চলছে রোগা হবার অভিযান। তবে ওজন বাড়াতে এখন অনেকেই চান। প্রয়োজনের তুলনায় যারা বেশি রোগা, শরীর প্রয়োজনে তুলনায় অতিরিক্ত রোগা, শুকনো হলে দেখতে খুব বাজে লাগে। সব ড্রেসেই তাদের বেমানান লাগে। তাদের জন্য মন খারাপের দিন শেষ। আমাদের কাছে তাদের সমস্যা সমাধান আছে। উপযুক্ত খাবার গ্রহণ করতে হবে। ফ্যাট যুক্ত খাবার গ্রহণ করলে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই শরীর মোটা হতে শুরু করে। ফ্যাট যুক্ত খাবারের তালিকায় রয়েছে তেল জাতীয় খাবার, অ্যালকোহলযুক্ত পানীয়, সয়াবিন, চর্বিযুক্ত খাবার, নারকেল, বাদাম, তেল জাতীয় শস্য ইত্যাদি এগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ফ্যাট।

হাই কার্বোহাইড্রেট ফুডস লিস্ট| কম কার্বোহাইড্রেট যুক্ত ফল

ওজন কমানোর জন্য খাবারের তালিকায় কম কার্বোহাইড্রেট যুক্ত ফল রাখাটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। হাই কার্বোহাইড্রেট ফুডস লিস্ট ওজন বাড়ানোর জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ঠিক এমনটাই বলা হয় গবেষণা তে। আমাদের ক্ষুদাকে উপশম করে লো কার্ব ফুড বা কম শর্করা জাতীয় খাবার। এবং খাবার গ্রহণের পরিমাণ খাওয়ার সময় না কমিয়ে লো কার্ব ফুড কেবলমাত্র গ্রহণ করেও ওজন কমানো যেতে পারে। দ্য ডায়েটারি গাইডলাইন অব আমেরিকা এর মত অনুযায়ী দৈনিক গ্রহণ করা মোট ক্যালরির প্রায় ৪৫ - ৬৫% আসে আমাদের কার্বোহাইড্রেট থেকে।

আরো পড়ুনঃ শিশুর ওজন ও উচ্চতা বৃদ্ধির উপায়

সেক্ষেত্রে খাবারের তালিকায় কার্বোডিটের পরিমাণ কম করা মানেই গৃহীত ক্যালরির পরিমাণ কম করে দেওয়া। কম চর্বিযুক্ত বা লো ফ্যাট ডায়েটের তুলনায় ওজন কমাতে লো কার্বোহাইড্রেট ডায়েট অধিক কার্যকরী। সে জন্য হাই কার্বোহাইড্রেট ফুডস লিস্ট যেমন-সাদা ময়দা, সাদা চিনি, চাল, সাদা পাউরুটি ইত্যাদির পরিবর্তে বিভিন্ন ধরনের ফলমূল, শাকসবজি এবং আমিষ জাতীয় খাবার যুক্ত করতে হবে খাদ্য তালিকায়।

কার্বোহাইড্রেট এর কাজ কি

যে সকল পলি হাইড্রক্সি অ্যালডিহাইড বা পলি হাইড্রোক্সি কিটন বা জৈব যৌগ অম্লীয় আর্দ্র বিশ্লেষণের কারণে পলিহাইড্রোক্সি এলডিহাইড কিংবা পলি হাইড্রক্সি কিটন উৎপন্ন করে থাকে তাদেরকে বলা হয় শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট। শর্করা বা কার্বোহাইড্রেট এর কাজ কি সেগুলোর নিচে দেয়া হল-

আরো পড়ুনঃ নামাজ না পড়ার ১৫ টি শাস্তি

  • জীবদেহের শক্তির প্রধান উৎস হিসেবে কাজ করে থাকে।
  • উদ্ভিদের সাপোর্টিং টিস্যুর গাঠনিক উপাদান হিসাবে কাজ করে থাকে।
  • উদ্ভিদের দেহ গঠনকারী পদার্থগুলির কার্বন কাঠামো প্রদান করে থাকে।
  • লুব্রিক্যান্ট হিসেবে হাড়ের সন্ধি স্থলে কাজ করে থাকে।
  • উদ্ভিদের ফুলে থাকে মধু ও দলে থাকে কান্ড এবং মূলে থাকে সুক্রোজ।
  • অল্প পরিমাণে গ্লুকোজ এবং ফ্রুটটোজ সঞ্চিত খাদ্য হিসেবে উদ্ভিদে থাকে।
  • অ্যামিনো এসিড এবং ফ্যাটি এসিড বিপাকে সাহায্য করে থাকে।

শেষ কথাঃ কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা

কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা কার্বোহাইড্রেট এর কাজ কার্বোহাইড্রেট বিহীন খাবার তালিকা ইত্যাদি সম্পর্কে জানতে হলে আমাদের পুরো পোষ্টটি ভালোভাবে পড়ুন, আশা করি সবকিছু ভালোভাবে বুঝতে পারবেন। কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা সম্পর্কে সবার আগে জানতে হলে আমাদের সাথেই থাকুন।

আজ আর নয়, কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা সম্পর্কে আপনার কোন কিছু জানার থাকলে আমাদের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আশা করি আমরা আপনার উত্তরটি দিয়ে দেবো। তাহলে আমাদের আজকের এই কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার তালিকা সম্পর্কে পোস্টটি যদি আপনাদের ভালো লেগে থাকে, তাহলে আপনার ফেসবুক ইন্সটাগ্রাম প্রোফাইলে আমাদের পোস্টটি শেয়ার করতে পারেন। ধন্যবাদ। ২৩৭৬৬

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url