স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি

অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রশ্ন স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? তার উত্তর জানব। যেহেতু ইসলাম ধর্মাবলম্বী অনুযায়ী স্বামী যদি স্ত্রীকে তালাক দেয় তাহলে একটি নির্ধারিত পরিমাণ দেনমোহর দিতে হয়। কিন্তু অনেকেই স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? এ ধরনের প্রশ্ন করে থাকে। তাদের জন্য আজকের এই আর্টিকেলে স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? তার উত্তর জানানো হবে।

সূচিপত্রঃ স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি

স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি?

স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? ধরনের প্রশ্ন অনেক শোনা যায়। বর্তমানে প্রচলিত আইন অনুযায়ী তালাক দিলেও দেনমোহর পরিশোধ করার বিধান রয়েছে। কিন্তু বর্তমানে এই আইনটিকে পরিবর্তন করার দাবি জানানো হচ্ছে। তাই আমরা স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? এই প্রশ্নের সঠিক জবাব পাবেন।

আরো পড়ুনঃ মশাবাহিত রোগ থেকে বাচার উপায়

আমাদের দেশের সাধারণত বিয়ের সময় পাত্রীপক্ষ জোরপূর্বক পাত্রকে তার সাধ্যের চাইতে অতিরিক্ত টাকা কাবিন নামায় ধার্য করতে বাধ্য করেন। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বিয়ের কাবিন করা হয় বাকিতে। ইসলামী বিধান অনুযায়ী বিয়ের সময় দেনমহল পুরোটাই পরিশোধ করা। অতিরিক্ত দেনমোহরের কারণে স্বামী তার স্ত্রী ও পরিবারের লোকজনের আর্থিক দাবি মেনে নিতে বাধ্য হন।

পবিত্র কোরআনে সূরা বাকারার ২২৯ আয়াত অনুযায়ী যদি কোন স্ত্রী তার স্বামীর কাছ থেকে মুক্ত হতে চান তবে কোন কিছু বিনিময় হতে হবে, যা তার মোহরানার অতিরিক্ত হবে না। তাই ইসলাম অনুসারে দেখা যায় স্ত্রী কর্তৃক স্বামীর ক্ষতিগ্রস্ত হলে স্ত্রী স্বামীকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য। কিন্তু আমাদের দেশে আইন অনুযায়ী কর্তৃক স্বামীকে তালাক প্রদান করা হলে স্ত্রীকে দেনমোহর প্রদান করতে হয়। যা ইসলামের বিরুদ্ধে।

তালাকের পর দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম

তালাকের পর দেনমোহর পরিশোধদের নিয়ম সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানিনা। কিন্তু আমাদের দৈনন্দিন জীবনের জন্য স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? তালাকের পর দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম জানা জরুরী।

আমাদের অনেকের মনে ভ্রান্ত ধারণা আছে যে তালাকের পর দেনমোহর পরিশোধ করা লাগে না কিন্তু তালাকের সঙ্গে দেনমোহর সম্পন্ন একটি আলাদা ঘটনা। সাধারণত দেনমোহর বিয়ের সাথে সম্পর্কেও যুক্ত। সাধারণত আমরা যখন একটা বিয়ের সম্পর্কের সাথে জড়িয়ে পড়ি তখন সেই নারীকে সম্মান প্রদর্শন করার জন্য তাকে যথার্থ ভালবাসা প্রদর্শন করার উদ্দেশ্যে সামাজিক রীতি এবং ইসলামিক রীতি অনুযায়ীদের দেনমোহর প্রদান করা হয়।

সাধারণত ইসলামী নিয়ম অনুযায়ী দেনমোহর বিয়ের সাথে সাথে পরিশোধ করে দেয়া উচিত কিন্তু বর্তমান সমাজের নিয়ম অনুযায়ী বিয়ের পরেও দেনমোহর পরিশোধ করা হয় না। তবে আপনারা যারা তালাকের পর দিলমহর পরিশোধ করতে চান অথবা বিয়ের ক্ষেত্রে আপনাদের যদি কোন ধরনের মিল না হয়ে থাকে তাহলে রীতি-নীতি অনুসারে আপনারা বিয়ের ক্ষেত্রে তালাক এর পথ অনুসরণ করতে পারবেন।

যদি কেউ বিলম্বিত দেনমোহরের বিবাহ করে থাকেন তাহলে দেখা যাবে যে বিয়ের পরে তা পরিশোধ করতে হবে কিন্তু কোনোভাবে আপনার শারীরিক অসুস্থতা হলে অথবা আপনি মৃত্যুবরণ করলে তাহলে সে ক্ষেত্রে আপনাকে বিবাহের পরে আপনার যদি ওয়ারিশগণ থেকে থাকে তারা তাদের এই দেনমোহর টাকা পরিশোধ করতে হবে।

তালাকের ক্ষেত্রে যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করেন তাহলে তালাকের পরবর্তী নিয়ম অনুসরণ করে আপনাকে পারিবারিকভাবে অথবা লোকজনের মাধ্যমে একটা স্থানে বসে এ বিষয়টি সমাধান করে নিতে হবে এবং প্রমাণ রেখে সেই দেনমোহরের টাকা প্রদান করে দিতে হবে। কিন্তু সর্বোত্তম হলো আপনি যদি বিয়ের সাথে সাথেই প্রদান করতে পারেন।

কিস্তিতে দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম

দেনমোহর পরিশোধ এর বিষয়টি সম্পর্কে জেনে রাখা আমাদের ব্যক্তির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। অনেকেই কিস্তিতে দেনমোহর পরিশোধ করতে চান তাদের জন্য কিস্তিতে দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম জানতে চাই। আমরা জানি যে বিয়ের ক্ষেত্রে স্ত্রীকে দেনমোহর দেওয়া বাধ্য করা হয়েছে। তবে কেউ যদি নিজের আর্থিক সমস্যার কারণে পরবর্তীতে দেনমোহর পরিশোধ করবে বলে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হয় এবং পরবর্তীতে যদি ঝামেলার কারণে তালাক হয়ে যায় তাহলে অবশ্যই দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে।

এক্ষেত্রে যদি স্ত্রী নিজের ইচ্ছায় তালাক দিয়ে থাকে তাহলে তালাক প্রদান করার যাবতীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে তারপর দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে। তবে স্বামী যদি দেনমোহর পরিশোধ করতে সমস্যা হয়ে থাকে অথবা এ ব্যাপারে অপারগতা প্রকাশ করে তাহলে সেটি আদালতের মাধ্যমে সমাধান করা হয় অথবা যদি পারিবারিকভাবে সমাধান করা হয় তাহলে দেখা যায় যে নির্দিষ্ট সময় পর পর আপনারা দেনমোহরের টাকা পরিশোধ করলেন।

আপনি যেভাবেই টাকা পরিশোধ করেন না কেন সেটা আপনার ব্যক্তিগত বিষয় কিন্তু আপনাকে টাকা পরিশোধ করতেই হবে। বেশিরভাগ সময় দেখা যায় দেনমোহর পরিশোধ করার ব্যাপারে পাত্রপক্ষ বিভিন্ন ধরনের সমস্যা করে থাকে। দেনমোহর তালাকের সাথে সম্পর্কিত না। যেহেতু বিয়ে করেছেন আপনাকে দেনমোহর দিতেই হবে।

আরো পড়ুনঃ সকালে কাঁচা বাদাম খাওয়ার উপকারিতা

দেনমোহর দেওয়ার ক্ষেত্রে আপনার যদি একেবারেই আর্থিক খারাপ অবস্থা থাকে তাহলে স্ত্রী পক্ষের লোকেরা এ বিষয়টি মেনে নিলে আপনি দিলমর কিস্তিতে পরিশোধ করতে পারবেন। কিন্তু এই বিষয়টি সম্পর্কে আপনাকে স্ত্রী পক্ষের সাথে আলাপ-আলোচনা করতে হবে।

স্ত্রী তালাক দিলে কি তালাক হয়?

স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? এই প্রশ্নের সাথে আরও একটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন স্ত্রী তালাক দিলে কি তালাক হয়? এ বিষয়টি সম্পর্কে অনেক জানতে চাই মেয়েরা। যেহেতু অনেক স্বামী খারাপ হয়ে থাকে যার ফলে স্ত্রীগণ তাদের ইচ্ছা অনুযায়ী তাদেরকে তালাক দেয় সাধারণত তাই স্ত্রী তালাক দিলে কি তালাক হয়? এ বিষয়টি সম্পর্কে জানা জরুরী।

স্ত্রী স্বামীকে তালাক দিতে পারে না। কিন্তু স্ত্রী যেকোনো সময় দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটাবার অধিকার রাখে। যাকে ইসলামী শরীয়ত অনুযায়ী খোলা বলা হয়। এ সময় স্ত্রী তার মোহরানা স্বামীকে ফেরত দিবে। ইবনু আব্বাস রাঃ বলেন, ছাবেত ইবনু কায়েসের স্ত্রী রাসূলুল্লাহ সাঃ এর নিকট আসলো এবং বলল হে আল্লাহর রাসূল সাঃ আমি ছাবেদ ইবনে কায়েসের দ্বীনদারী এবং চালচলন এর নিন্দা করি না।

তবে আমি মুসলিম নারী হয়ে তার নাফরমানি করব, এটা চাই না। যখন নবীজি সাঃ বললেন, তুমি কি তার মোহর বাবদ বাগান ফেরত দেবে? মহিলা বলল হ্যাঁ দেব। নবী করিম সাঃ সাবেত কে বললেন, বাগান গ্রহণ করো এবং তাকে খোলা হিসেবে এক তালাক প্রদান কর { বুখারী মিশকাতঃ ৩২৭৪}

উক্ত হাদিস থেকে প্রমাণিত হয় যে স্ত্রী স্বামীকে সরাসরি তালাক দিতে পারবে না তবে তালাক নেওয়ার ব্যবস্থা করে নিতে পারবে। এর জন্য উক্ত এলাকার গণ্য ব্যক্তিদের তাদের সমস্যা সম্পর্কে বলতে হবে এবং পারিবারিক ব্যবস্থার মাধ্যমে তালাক নিয়ে নিতে পারবে। এভাবেই একজন নারী তালাক নিতে পারবে।

দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি - ইসলামে দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি কি

দেনমোহর হলো স্ত্রীর সম্মাননা এবং তাদের এটা অধিকার। কিন্তু আমরা অনেকেই দেনমোহর পরিশোধ করি না। তাদের জন্য ইসলামে দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি কি? এ বিষয়ে আলোচনা করা হবে। আপনি যদি দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি সম্পর্কে ধারণা রাখেন তাহলে এই কাজ থেকে বিরত থাকবেন। ইসলামে দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি কি? তা উল্লেখ করা হলো।

দেনমোহর স্ত্রীর একটি অধিকার। এবং এটি পালন করা আবশ্যক একজন স্বামীর জন্য। বিয়ের সময় স্বামীর কর্তৃক স্ত্রী দেনমোহর প্রাপ্য হয়ে থাকে তবে সাময়িক আর্থিক সমস্যার কারণে দেখা যায় যে অনেক সময় দের মোহর বিয়ের আসরে পরিশোধ না করে হিসেবে পরিগণিত হয়। তবে যখনই হোক এটা পরিশোধ করতে হবে এটাই নিয়ম।

কেউ যদি স্ত্রীর সঙ্গে সংসার করতে করতে পরে বিভিন্ন কারণে সংসার বিচ্ছেদ করতে চাই অথবা তালাক দিয়ে খেলে তাহলে অবশ্যই হিসেবে দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে। তবে কেউ যদি দেনমোহর পরিশোধ করতে না চায় তাহলে তাকে আইনের ব্যবস্থার মাধ্যমে শাস্তি দেওয়া যেতে পারে। ইসলামের দৃষ্টিকোণ থেকে অবশ্যই দেনমোহর স্ত্রীকে প্রদান করতে হবে।

যদি সম্ভব হয় তাহলে বিয়ের আসলে দেনমোহর অল্প করে সাধ্য অনুযায়ী ধার্য করে সেটিকে পরিশোধ করতে হবে। অথবা বিলম্বিত দেনমোহর পরিশোধ করতে হবে। অনেকেই বলে দেনমোহর পরিশোধ না করে স্ত্রীর সাথে মেলামেশা করা উচিত নয় তবে আমাদের বাংলাদেশের দৃষ্টিকোণ থেকে এটা দেখা যায় যে দেনমোহর দুই প্রকার নগদ দেনমোহর এবং বিলম্বিত।

যদি কেউ তার স্ত্রী দেনমোহর পরিশোধ না করে তাহলে আইনি দৃষ্টিকোণ থেকে বিভিন্ন রকমের ঝামেলা পোহাতে হবে। কারণ এই বিষয়ে কঠোর নিয়ম করা রয়েছে এবং ইসলামের দৃষ্টিভঙ্গ থেকে দেখতে গেলে এটি আল্লাহতালার বিধান। যদি এটি পরিশোধ না করা হয় তাহলে আল্লাহ তায়ালার বিধান অমান্য করা হবে। তাই একজন পুরুষের উচিত তার স্ত্রীদের মোহর পরিশোধ করে দেওয়া।

দেনমোহর কখন অর্ধেক হবে

স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? এই বিষয়ে আশা করি আপনারা ধারণা পেয়েছেন। বিভিন্ন কারণে দেনমোহর অর্ধেক হয় কিন্তু আমরা অনেকেই দেনমোহর কখন অর্ধেক হবে? এ বিষয়টি সম্পর্কে জেনে রাখা জরুরী। কারণ এটি আমাদের ইসলামী জীবনে এবং আমাদের জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। দেনমোহর কখন অর্ধেক হবে? আলোচনা করা হলো।

আল্লাহ তা'আলা কোরআন মাজীদে বলেন, " আর তোমরা যদি তাদেরকে স্পর্শ করার আগে তালাক দাও, অথচ তাদের জন্য মোট ধার্য করে থাক, তাহলে যা তোমরা ধার্য করেছো তার অর্ধেক, তবে যায় অথবা যার হাতে বিয়ের বন্ধন রয়েছে সে মাপ করে দেয় এবং মাফ করে দেওয়াই তাকওয়ার নিকটবর্তী। আর তোমরা নিজেদের মধ্যে অনুগ্রহের কথা ভুলে যেও না। তোমরা যা করো নিশ্চয়ই আল্লাহ তা সবিশেষ প্রত্যক্ষ কারী" { সূরা বাকারা, আয়াতঃ ২৩৭ }

আরো পড়ুনঃ ১৮ সেপ্টেম্বর কি দিবস - ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২৩ - ১৮ সেপ্টেম্বর বাংলা তারিখ

আল্লাহ তায়ালার কথা অনুযায়ী স্পষ্ট যে যদি বৈধ বিবাহ হয় এবং দেনমোহর নির্ধারণ করা হয় কিন্তু যদি স্ত্রীর সাথে শারীরিক সম্পর্ক করা না হয় সে ক্ষেত্রে অর্ধেক দেনমোহর দেওয়া যাবে। আর যদি স্ত্রী ক্ষমা করে দেয় কিংবা স্বামী পুরোদল মুহুর দিয়ে দেয় তবে তা তাদের ইচ্ছার ওপর নির্ভর করে।

আমাদের শেষ কথাঃ স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি

প্রিয় পাঠকগণ আজকের এই আর্টিকালে স্ত্রী তালাক দিলে দেনমোহর পাবে কি? দেনমোহর কখন অর্ধেক হবে? ইসলামে দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি কি? দেনমোহর পরিশোধ না করার শাস্তি, স্ত্রী তালাক দিলে কি তালাক হয়? কিস্তিতে দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম, তালাকের পর দেনমোহর পরিশোধের নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।

আপনি যদি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ে থাকেন তাহলে ইতিমধ্যে উক্ত বিষয়গুলো সম্পর্কে জানতে পেরেছেন। এগুলো আমাদের ব্যক্তির জীবনের খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই বিষয়গুলো জানতে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মনোযোগ সহকারে পড়ে নিন।২০৭৯১

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url